ধর্ষণের অভিযোগে মাদ্রাসা শিক্ষক গ্রেফতার

8

চট্টগ্রামের সাতকানিয়ায় ৯ বছরের শিশু শিক্ষার্থীকে ধর্ষণের অভিযোগে আব্দুল মালেক নামে এক মাদ্রাসাশিক্ষককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

শনিবার গভীর রাতে তাকে পুরানগড়ের ৪ নাম্বার ওয়ার্ড লতাবুনিয়া এলাকার নিজবাড়ি থেকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতার মালেক ওই এলাকার মৃত নুরুল্লাহের ছেলে।

ছাত্রীর পরিবার ও মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, উপজেলার পুরানগড় ইউনিয়নের ৪ নাম্বার ওয়ার্ড উত্তর পুরানগড় লতাবুনিয়া ফোরকানিয়া মাদ্রাসার হেফজখানায় ধর্ষণের শিকার ছাত্রীটি পড়ত। ধর্ষক মালেক ওই মাদ্রাসার শিক্ষক। কয়েক দিন ধরে বিভিন্ন প্রলোভন ও ভয়ভীতি দেখিয়ে ওই ছাত্রীকে কয়েকবার ধর্ষণ করে শিক্ষক মালেক।

শনিবার বাড়ি ফিরে ছাত্রীটি অসুস্থবোধ করলে বিষয়টি তার মাকে বিস্তারিত বলে। পরে ওই ছাত্রীর মা বিষয়টি এলাকাবাসীকে জানান। এলাকাবাসীর খবরে রাতেই শিক্ষক মালেককে আটক করে থানায় নিয়ে যায় পুলিশ।

এ ব্যাপারে পুরানগড় ইউনিয়নের ৪ নাম্বার ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য নুরুল আমিন বলেন, মালেক ওই মাদ্রাসার শিক্ষক ও পরিচালনা কমিটির পদেও আছেন। তার স্ত্রী-সন্তানও রয়েছে।

সাতকানিয়া থানার ওসি আনোয়ার হোসেন বলেন, ধর্ষণের শিকার ছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে রোববার বিকালে ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে থানায় একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের করেছেন। সোমবার সকালে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য ওই ছাত্রীকে চমেক হাসপাতালে পাঠানো হবে। একই সঙ্গে অভিযুক্তকে আদালতে সোপর্দ করা হবে।